নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু ( Netaji Subhas Chandra Bose) – রচনা

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু রচনা

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু রচনা

ভূমিকা

ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে সুভাষচন্দ্র বসু এক অমর ব্যক্তিত্ব। তিনি ছিলেন একজন সাহসী, দূরদর্শী, এবং দেশপ্রেমিক ব্যক্তিত্ব। তিনি ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে অসামান্য অবদান রেখেছেন।

জীবন ও শিক্ষা

সুভাষচন্দ্র বসু ১৮৯৭ সালের ২৩শে জানুয়ারি কটকে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা জানকীনাথ বসু ছিলেন একজন বিশিষ্ট আইনজীবী এবং মাতা প্রভাবতী দেবী ছিলেন একজন গৃহবধূ। সুভাষচন্দ্র বসু কলকাতায় স্কটিশ চার্চ কলেজ এবং প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে পড়াশোনা করেন। এরপর তিনি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে এম.এ. ডিগ্রি লাভ করেন।

সুভাষচন্দ্র বসু ১৯২১ সালে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে যোগ দেন। তিনি কংগ্রেসের বামপন্থী দলের একজন নেতৃস্থানীয় নেতা ছিলেন। তিনি কংগ্রেসের অসহযোগ আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯২৮ সালে তিনি কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচিত হন।

১৯৩৯ সালে সুভাষচন্দ্র বসু কংগ্রেস থেকে পদত্যাগ করেন। তিনি মনে করতেন যে কংগ্রেস ব্রিটিশদের সাথে আপোষ করতে চাইছে। তিনি ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামে সশস্ত্র বিপ্লবের পথ বেছে নেন।

১৯৪১ সালে সুভাষচন্দ্র বসু জাপানে যান। তিনি সেখানে ভারতীয় জাতীয় সেনা বা আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করেন। তিনি আজাদ হিন্দ ফৌজের নেতৃত্ব দিয়ে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

১৯৪৫ সালের ১৮ই আগস্ট সুভাষচন্দ্র বসু বিমান দুর্ঘটনায় মারা যান। তাঁর মৃত্যু ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য একটি বড় ক্ষতি ছিল।

Read More: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর: বাংলা সাহিত্যের বিশ্বকবি – রচনা

সুভাষচন্দ্র বসুর অবদানগুলি নিম্নরূপ:

  • ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে অসামান্য অবদান: সুভাষচন্দ্র বসু ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে অসামান্য অবদান রেখেছেন। তিনি কংগ্রেসের বামপন্থী দলের একজন নেতৃস্থানীয় নেতা ছিলেন এবং ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামে সশস্ত্র বিপ্লবের পথ বেছে নিয়েছিলেন। তিনি আজাদ হিন্দ ফৌজের নেতৃত্ব দিয়ে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।
  • দেশপ্রেমের অনুপ্রেরণা: সুভাষচন্দ্র বসু ছিলেন একজন মহান দেশপ্রেমিক। তিনি ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। তাঁর দেশপ্রেমের আদর্শ আজও ভারতীয়দের অনুপ্রাণিত করে চলেছে।
  • সাহস এবং দূরদর্শিতা: সুভাষচন্দ্র বসু ছিলেন একজন সাহসী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব। তিনি কংগ্রেসের বামপন্থী দলের একজন নেতৃস্থানীয় নেতা ছিলেন এবং ভারতীয় স্বাধীনতা সংগ্রামে সশস্ত্র বিপ্লবের পথ বেছে নিয়েছিলেন। তাঁর সাহস এবং দূরদর্শিতা ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

সুভাষচন্দ্র বসু ভারতের একজন জাতীয় নায়ক। তিনি ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে একজন অমর ব্যক্তিত্ব। তাঁর অবদানগুলি ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামে অপরিসীম। তিনি আজও ভারতীয়দের কাছে একজন অনুপ্রেরণার উৎস।

x

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related Posts
Scroll to Top